মনোযোগ বাড়ানোর খাবার

কাজে-কর্মে মনোযোগ বাড়াতে তো সবাই চায়। কিন্তু কিভাবে মনোযোগ বাড়ানো যায় সেটা নিয়ে অনেকের মনে অনেক প্রশ্ন। ব্রেইনের কার্যক্ষমতা বাড়ানোর মাধ্যমে স্মরণশক্তি ও মনোযোগ দুটাই বাড়ানো সম্ভব। আর ব্রেইনের কার্যক্ষমতা বাড়বে বিশেষ কিছু খাবার খেলে। আসুন দেখে নেয়া যাক খাবারগুলোর তালিকা।


চকোলেটঃ
ইতালির L’Aquila ইউনিভার্সিটি ৯০জন বয়স্ক ব্যক্তির উপর গবেষনা চালিয়েছে যাদের কিছু মনে রাখতে, চিন্তা করতে বা বিচার করতে সমস্যা হচ্ছিলো। তাদেরকে আট সপ্তাহ ধরে অল্পও, মাঝারী ও বেশি ফ্লেভানল ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যুক্ত কোকো বেভারেজ খাওয়ানো হয়। ফলাফল হিশেবে দেখা যায় যে যারা মাঝারী ও বেশি ফ্লেভানল ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যুক্ত কোকো বেভারেজ খেয়েছিলো তাদের মনে রাখা ও চিন্তা করার ক্ষমতা বাকিদের তুলনায় অনেক বেড়ে যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে এক্ষেত্রে ডার্ক চকোলেটের মাত্র একটি বা দুটি টুকরোই যথেষ্ট।

ফুলকপিঃ
ফুলকপিতে ভিটামিন বি ফ্যামিলির কোলিন আছে। কোলিনকে শরীর সিটিকোলিনে রূপান্তরিত করে। সিটিকোলিন একটি বয়সরোধকারী উপাদান। হার্ভাড মেডিকেল স্কুলের অধীনের শাখা এমসিলিন হাসপাতালের মতে সিটিকোলিন ব্রেইনের এনার্জি ও ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যাক্টিভিটি বাড়ায়।

মরিচঃ
ব্রাউন ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছে যে ঝাল খাবার খাওয়ার সময় ব্রেইনে যেই রাসায়নিক পরিবর্তন হয় সেটা স্মরণ শক্তি ও শেখার ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য কার্যকরী। তাপমাত্রার বৃদ্ধিও একই রকম অবদান রাখতে পারে।

রাঙ্গা আলু বা মিষ্টি আলুঃ
বার্নার্ডের মতে মিষ্টি আলু মাটির নিচের স্বাস্থ্যকর খাবারগুলোর মধ্যে অন্যতম । এগুলোতে বীটা-ক্যারোটিনের উপস্থিতি আছে। তিনি বলেন এটা জাপানের ওকিনাওয়া এর প্রধান খাদ্য। আর ওকিনাওয়াতে মানুষ প্রায় ১০০ বছর বাঁচে।

বাঙ্গিঃ
বাঙ্গিতে আছে বিটা-ক্যারোটিন ও ভিটামিন সি। অরিগন হেলথ এন্ড সাইন্স ইউনিভার্সিটির গবেষণা মতে ভিটামিন সি ব্রেইনকে বয়সের আগে বিকল হতে বাধা দেয়। বার্নার্ডের মতে প্রতিদিনের খাবার তালিকায় কমলা রঙের খাবার রাখা যেতে পারে যেমন বাঙ্গি, গাজর ইত্যাদি।
বিট জুসঃ
ওয়েক ফরেস্ট ইউনিভার্সিটির গবেষকদের মতে বিটের জুস পান করলে শরীরের রক্ত চলাচল বাড়ে এবং ব্রেইনের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। বিটে প্রাকৃতিক ভাবেই
প্রচুর নাইট্রেট বিদ্যমান। নাইট্রেট ফ্রন্টাল লবের সাদা অংশে অতিরিক্ত রক্ত ও অক্সিজেন সরবরাহ করে। বয়স্কদের মধ্যে যারা দিনে ১৬ আউন্স বা তার বেশি বিটের জুস খায় তাদের ব্রেইনের কার্যক্ষমতা বেশি বলে উল্ল্যেখ করেছেন গবেষকরা।

দইঃ
UCLA এর একটি সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে যে যেসব নারী প্রোবায়োটিক্স বা ভালো ব্যাক্টেরিয়াযুক্ত খাবার গ্রহণ করে তাদের ব্রেইন ও হজম শক্তি অন্যদের তুলনায় বেশি। দইয়ে প্রচুর ভালো ব্যাকটেরিয়া আছে যা শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী। দইয়ের ব্যাকটেরিয়া ব্রেইনের কার্যক্ষমতা অনেকখানি বাড়িয়ে দেয়।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: