নকল প্রসাধনীর রমরমা ব্যবসা

ঈদের বাজারকে টার্গেট করে নকল, মেয়াদোত্তীর্ণ প্রসাধন সামগ্রীর রমরমা ব্যবসা চলছে ফুটপাতে। নগরের রেয়াজউদ্দিন বাজার কেন্দ্রিক কয়েকটি চক্র ব্র্যান্ডেড কোম্পানির আদলে প্যাকেটজাত করে এসব নকল প্রসাধনী বাজারজাত করছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। অন্যদিকে, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যের গায়ে আগাম মেয়াদী স্টিকার লাগিয়েও বিভিন্ন প্রসাধনী সামগ্রী বিক্রি করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে নগর পুলিশ, সিটি করপোরেশন, বিএসটিআইসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সময়োপযোগী পদক্ষেপ না থাকায় এসব নকল, মেয়াদোত্তীর্ণ প্রসাধন সামগ্রী কিনে প্রতারিত হচ্ছেন ক্রেতারা।

এ ব্যাপারে বিএসটিআই’র সহকারী পরিচালক হাবিবুর রহমান বলেন, ‘একটা ব্র্যান্ডেড কোম্পানির পণ্য নকল করে বাজারজাত করা হচ্ছে। এই অপরাধ বন্ধ করার ক্ষেত্রে মূল কোম্পানিগুলোরও একটা ভূমিকা আছে। আর বিএসটিআই’র কাজ হচ্ছে মূলত পণ্যের গুণাগুণ বিচার করা। তাছাড়া বিএসটিআই’র আইন দ্বারা এসব নকল বা মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যের ব্যাপারে কোনো ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ারও এখতিয়ার নেই।’
অনুসন্ধানে জানা গেছে, নগরীর মাদারবাড়ি, হালিশহর, বলুয়ার দিঘীর পাড়, বায়েজিদ বোস্তামি এলাকার চন্দ্রনগর, নাসিরাবাদ এলাকায় রয়েছে নকল প্রসাধনী তৈরির ছোট-বড় প্রায় ১৫টি কারখানা। কারখানা কর্তৃপক্ষ ভাঙ্গারিদের কাছ থেকে ব্যবহৃত ব্র্যান্ডেড কোম্পানির প্রসাধনী পণ্যের ফেলে দেওয়া বোতল বা জারগুলো পাইকারি মূল্যে কিনে নেয়। পরে খালি বোতল বা জারগুলোতে নিজেদের তৈরি করা নকল প্রসাধনী ভরা হয়। অন্যদিকে, ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকার জিঞ্জিরা, চকবাজার ও হাজারিবাগের চর, টঙ্গী এলাকার বিভিন্ন নকল প্রসাধনী তৈরির কারখানা থেকেও অসাধু চক্র নকল কোম্পানির প্রস্তুতকৃত প্রসাধনী কিনে আনে। মফস্বল, নগরের ফুটপাত এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরাই এসব নকল প্রসাধন সামগ্রীর পসরা সাজিয়ে বসে। আসল কোম্পানির পণ্যের চেয়ে দাম তুলনামূলক কম হওয়ায় নিম্নবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণির ক্রেতারা এগুলো কিনে।

যেভাবে তৈরি হয় নকল প্রসাধন :

জানা গেছে, চট্টগ্রামে নকল প্রসাধনী প্রস্তুতকারক চক্রটি আছদগঞ্জের বিভিন্ন পারফিউমারি দোকান থেকে কেমিক্যাল সংগ্রহ করে। এই পারফিউমের সাথে স্পিরিট মিশিয়ে ব্র্যান্ডেড কোম্পানির খালি পারফিউমের বোতলে বোতলজাত করে।

বিভিন্ন সাবান কারখানা থেকে উচ্ছিষ্ট বা নিম্নমানের সাবান পানি সংগ্রহ করে পারফিউমের সঙ্গে মিশিয়ে নকল শ্যাম্পু তৈরি করা হয়। পরে তা বোতলজাত করা হয়। নকল বডি স্প্রে ও পারফিউমের মধ্যে হুগো, ফেরারি, কান্তা, পয়জন, ওয়ান ম্যান, হ্যাভক, রয়েল, কোবরা, ডাভ, ইমপেরিয়াল ব্র্যান্ডের বোতলজাত প্রসাধনী দেখা গেছে। নকল সাবানের মধ্যে আছে ডাভ, ইমপেরিয়াল ব্র্যান্ডের প্যাকেটজাত সাবান। শ্যাম্পুর মধ্যে হেড অ্যান্ড শোলডার, লোরিয়েল, রেভলন, প্যানটিন প্রো-ভি, অলিভ অয়েল, কেওকারপিন, আমলা, ভ্যাসলিন, সানসিল্ক এবং ক্লিয়ার ব্র্যান্ডের বোতলজাত শ্যাম্পু বিক্রি হচ্ছে।

যেখানে বিক্রি হয় : নগরের নিউমার্কেট, আগ্রাবাদ, হালিশহর, ষোলশহর দুই নম্বর গেট, ইপিজেড গেট এলাকা, অক্সিজেন মোড়ে নকল ও মেয়াদোত্তীর্ণ প্রসাধন সামগ্রী বিক্রি হতে দেখা গেছে। এসব সামগ্রী ক্রেতা বুঝে ১০০ টাকা থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: